বিদ্যুৎ খরচ অর্ধেক কমিয়ে নিন || Save or Reduce Electricity bill !

বিদ্যুৎ খরচ অর্ধেক কমিয়ে নিন || Save or Reduce Electricity bill ! |
Save Electricity bill

বিদ্যুৎ বিল কমানোর কিছু উপায় !!

how to save or reduce electricity bill ?


✅ মাসিক খরচ নিয়ন্ত্রণে রাখতে বিদ্যুতের ব্যবহার সম্পর্কে সচেতন থাকতে হবে। একটু সতর্ক থাকলে বাড়তি বিদ্যুৎ খরচ এড়ানো সম্ভব।

⚡️ গরমের সময় বিদ্যুৎ বিল বেড়ে দ্বিগুণ হয়ে যায়। কারণ বাতি, ফ্রিজ, কম্পিউটার, ওয়াশিং মেশিন, ওভেন, ব্লেন্ডার, আয়রন মেশিনসহ আরও অনেক কাজে বিদ্যুৎ খরচ তো হয়ই।


▷ বিদ্যুতের কিলো ওয়াট হিসাব !

১০০০ ওয়াটের একটি এসি ১ ঘন্টা চালালে ১ ইউনিট বিল আসবে। ৫০০ ওয়াটের ফ্রিজ ২ ঘন্টা চালালে ১ ইউনিট বিল আসবে। ইউনিট এবং কিলোওয়াট ঘন্টা শক্তির একক। আর ওয়াট ক্ষমতার একক।

🥵 আর প্রবল গরমের সময় তো বলাই বাহুল্য । গ্রীষ্মকালে (Summer) দেশের অধিকাংশ জায়গায় মাত্রা ছাড়ায় পারদ। গরম থেকে বাঁচতে ভরসা এসি (AC)। কিন্তু লাফিয়ে বাড়ছে বিদ্যুতের দাম।

সম্প্রতি কয়লা ও গ্যাস সঙ্কটের জেরে দেশের অনেক জায়গায় বিদ্যুতের ঘাটতিও দেখা যাচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে বিদ্যুৎ খরচ যাতে কম হয় এবং গরম থেকে বাঁচার জন্য জানতে হবে Electric Efficiency যা এমন কিছু গরম থেকে বাঁচাবে, বিল কমাবে বিদ্যুতেরও (Electricity Bill)।


📢 বিদ্যুতে ভর্তুকির চাপ সামলাতে আগামী তিন বছরে মোট ১২ দফা দাম বাড়াবে সরকার। বিদ্যুৎ বিভাগ ঢাকা সফররত আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) প্রতিনিধি দলকে এ কথা জানিয়েছে।

💬 আইএমএফের পরামর্শ মেনে ভর্তুকি প্রত্যাহার করা হলে বিদ্যুতের দর ১২ টাকার ওপরে নিয়ে যেতে হবে। সে ক্ষেত্রে ভোক্তাপর্যায়ে গড়ে বিদ্যুতের দাম হবে প্রায় ১৫ টাকা, যা এখন আছে ৮ টাকা ৯৫ পয়সা।

— Electricity Bill, কত ব্যবহারে কত খরচ ? বিদ্যুতের খুচরা মূল্যহার


😱 মাস শেষে যখন বিদ্যুতের বিল আসে তখন অনেকের মাথা নষ্ট হয়। এসি ব্যবহার না করেও অনেকের ইউনিট বেশি পুড়েছে। আপনি জানেন এর কারণ কি?

শুধু বিদ্যুতের বিল বাঁচাতে হবে এমন নয়, বিদ্যুৎ সংরক্ষণ করতে হবে। কিছু নিয়ম মেনে চললে এই বিলের খরচ কমানো যায়।

তাই বিদ্যুৎ সাশ্রয় করতে চাইলে কিছু বিষয় মনে রাখা জরুরি।

আসুন জেনে নিই বিদ্যুৎ বিল কমানোর কিছু কৌশল:

👉 আপনার ঘরে যদি পুরনো বাল্ব বা টিউবলাইট থাকে তাহলে সেগুলো বদলে ফেলুন।

👉 LED (Light Emitting Diode) বাল্ব এর ব্যবহার বাড়ান। ব্যবহার করুন সিএফএল বা এলইডি লাইট। এসব লাইটের আলোয় ফিলামেন্টের তুলনায় সার্কিট ব্যবহার হওয়ায় বিদ্যুতের খরচ কমে।

👉 গৃহস্থালির ইলেকট্রিক বোর্ডে Light Indicator টি বন্ধ রাখুন। ৩ টির মতো নির্দেশক লাইট থাকলে দৈনিক ৬০-৭০ ওয়াট মতো বিদ্যুৎ খরচ হয় যা আপনার বিদ্যুৎ খরচ বাড়িয়ে দেয়। তাই বিদ্যুৎ খরচ রোধ করতে লাইট ইন্ডিকেটর বন্ধ করুন।

👉 মোবাইল চার্জার থেকে খোলার পর অবশ্যই সুইচ বন্ধ করতে হবে।

👉 একটানা এসি না চালিয়ে মাঝে কয়েক ঘণ্টার জন্য বন্ধ রাখুন। ঘণ্টা খানেক এসি চালানোর পর সেটি বন্ধ রাখলেও ঘর ঠান্ডা থাকবে অনেকক্ষণ।

👉 বেশিরভাগ সময় এসি রিমোট দিয়ে বন্ধ করার পর সুইচ বন্ধ করি না। এতেও কিছুটা অতিরিক্ত ইউনিট পোড়ে।

👉 যে কোনো বৈদ্যুতিক যন্ত্র কেনার সময় স্টার রেটিংয়ে ভরসা রাখুন। কোনো যন্ত্রের স্টার রেটিং বেশি হলে তার ইউনিট বাঁচানোর ক্ষমতাও ততোধিক।

👉 পুরনো তার, পুরনো যন্ত্র ব্যবহারে বিদ্যুৎ বিল বাড়ে। তাই ১০-১৫ বছরের পুরনো যন্ত্র বা তার ব্যবহার না। আধুনিক যন্ত্র ব্যবহার করুন।

👉 ঘন ঘন এসি চালু ও বন্ধ করবেন না। চালিয়ে কিছুক্ষণ পর বন্ধ করাই নিয়ম।

👉 কম্পিউটার যখন ব্যবহার করবেন না তখন চালিয়ে রাখবেন না। বন্ধ করে রাখুন অথবা স্লিপ মোডে রাখুন। এতে বিদ্যুৎ কম খরচ হবে।

👉 রোদ পড়ে এমন জায়গায় এসির আউটলেট রাখবেন না। অনেকে মাথার ওপরে একটি শেড করে দেন। এটিও ভুল ধারণা। এসি মেশিন রোদ-বৃষ্টির হাত থেকে বাঁচাতে ঢেকে রাখলে তাতে মেশিন খারাপ হয় তাড়াতাড়ি।

👉 এসির ( air Cooler ) তাপমাত্রা ২৪ ডিগ্রির নীচে নামাবেন না । তাতে বেশি ইউনিট খরচ হয়।

👉 দিনে এক ঘণ্টা করে বন্ধ রাখুন ফ্রিজ। যন্ত্রও বিশ্রাম পাবে, বিদ্যুৎও বাঁচবে।

Inspiration ( Electricity Efficiency )

নিয়ম করে সব যন্ত্রেরই সার্ভিসিং করান সময় মতো। এতে যন্ত্র ভাল থাকে ও কম বিদ্যুৎ টানে। এভাবে উপরের এই কয়েকটি বিষয় নজরে রাখলে এবং ইলেকট্রনিক ডিভাইসগুলি সঠিক সময়ে বিদ্যুতের সাথে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করলে আপনার বিল প্রায় অর্ধেক শতাংশ কমে যাবে।

🗲 বিদ্যুতের যেমন দামও বেড়েছে, বিদ্যুৎ ব্যবহার সম্পর্কে সচেতনতা সেভাবে তৈরি হয়নি। বিদ্যুৎ ব্যবহার যত বেশি হবে সেই মার্জিনে দাম তত বেশি আসবে।

frequently asked questions (FAQ)

❓ প্রস্নঃ বৈদ্যুতিক পাখা ধীরে ধীরে ঘুরলে বিদ্যুৎ খরচ কি একই হয় ?

উত্তরঃ বৈদ্যুতিক পাখা ধীরে ধীরে ঘুরলে বিদ্যুৎ খরচ একই হয় ?
কারণ পর্যাবৃত্ত গতি ! নির্দিষ্ট সময় পর পর একইভাবে একই দিকে স্পন্দিত বা গতিশীল হয়। ঘড়ির কাটা, বৈদ্যুতিক পাখা, সাইকেলের চাকা ইত্যাদির গতিও পর্যাবৃত্ত গতির উদাহরণ। কম্পন/স্পন্দন গতিও

Post a Comment

0 Comments